১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
রবিবার | দুপুর ১:৩১
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
পঞ্চবটি-মুক্তারপুর সড়ক প্রশস্তকরণ ও দোতলা রাস্তার ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৪ নভেম্বর ২০২৩, ডেস্ক রিপোর্ট (আমার বিক্রমপুর)

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশের ১৫৭টি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ১০ হাজার ৪১টি অবকাঠামোর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করেছেন। এর মধ্যে পঞ্চবটি-মুক্তারপুর সড়ক প্রশস্তকরণ ও দোতলা রাস্তা নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তরও রয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ প্রকল্পগুলো উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।২৪টি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন এ প্রকল্পগুলোর ব্যয় ৯৭ হাজার ৪৭১ কোটি টাকা।

আরও পড়তে পারেন: মুন্সিগঞ্জবাসীর স্বপ্নের প্রকল্পে কচ্ছপের গতি, ৩৪ মাসে অগ্রগতি ৫ শতাংশ

এসময় গণভবনে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, সংসদ সদস্য ও সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। আর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের ৬৪টি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়সহ দেশব্যাপী ১০১টি প্রান্তে সুবিধাভোগীরা যুক্ত ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে পঞ্চবটি-মুক্তারপুর সড়ক প্রশস্তকরণ ও দোতলা রাস্তা নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন উপলক্ষে সংশ্লিষ্টরা প্রধানমন্ত্রীর সাথে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। পরে পঞ্চবটি এলাকায় ভিত্তিপ্রস্তরের সামনে নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য শামিম ওসমান ও মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য মৃণাল কান্তি দাস বক্তব্য রাখেন।

ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ পথের  ভোগান্তি নিরসণ, পার্শ্ববর্তী নারায়ণগঞ্জসহ অন্যান্য জেলার সাথে নিরবচ্ছিন্ন, সহজতর ও ব্যায় সাশ্রয়ী সড়ক যোগাযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে ২০২০ সালের ৮ ডিসেম্বর একনেকে ২ হাজার ২৪২ কোটি ৭৭ লাখ টাকা ব্যায়ে পঞ্চবটি-মুক্তারপুর সড়ক প্রশস্তকরণ ও দোতলা রাস্তা নির্মাণ প্রকল্প অনুমোদিত হয়।

পঞ্চবটি-মুক্তারপুর সড়ক প্রশস্তকরণ ও দোতলা রাস্তা নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় নারায়ণগঞ্জের পঞ্চবটি চৌরাস্তা থেকে ছয় লেনের ৩১০ মিটার দৈর্ঘ্যের একটি সড়ক ফতুল্লা-ঢাকার দিকে ও নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ার দিকে একই দৈর্ঘ্যের আরেকটি সড়ক নির্মিত হবে। পাশাপাশি পঞ্চবটি থেকে চরসৈয়দপুর এলাকায় তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু পর্যন্ত ১০ দশমিক তিন সাত কিলোমিটার পথে ৯ দশমিক শূন্য হয় কিলোমিটার দোতলা সড়ক ও পঞ্চবটি থেকে কাশিপুর পর্যন্ত ৩ দশমিক ৫ কিলোমিটার বর্তমান দুই লেনের গড়কটি চার লেনে উন্নীত হবে। এবং তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু থেকে মুক্তারপুর সেতু পর্যন্ত ৩ দশমিক ৭৫ কিলোমিটারের বর্তমান দুই লেনের সড়কটি চার লেনে উন্নীত হবে। এছাড়া প্রকল্প এলাকায় ১৭ দশমিক ৬১ কিলোমিটার ড্রেন ও ৪টি টোলপ্লাজা নির্মাণ করা হবে। এটি হবে ফরিদপুরের ভাঙ্গা এবং সিরাজগঞ্জের পর তৃতীয় ইন্টারসেকশন সম্বলিত দৃষ্টিনন্দন সড়ক। ২০২৫ সালে প্রকল্পের কাজ শেষ হলে যানবাহনের গতি বাড়বে প্রায় ৫ গুণ।

error: দুঃখিত!