২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
মঙ্গলবার | সকাল ৬:৫৬
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
খাওয়ার আগে-পরে যে নিয়মগুলো মেনে চললে কমবে ওজন, বাড়বে হজমশক্তি
খবরটি শেয়ার করুন:

সাধারণত খাওয়ার নিয়ম হচ্ছে দিনের শুরুতেই সবচেয়ে বেশি খাওয়া দিয়ে শুরু করতে হবে এবং শেষ খাবারটা হতে হবে কম। এই নিয়ম মেনে চলতে গেলে সকালেই খেতে হবে সবচেয়ে ভারী খাবার আর রাতে খেতে হবে হালকা খাবার। কিন্তু বেশির ভাগ মানুষের ক্ষেত্রেই দেখা যায় এর বিপরীত হচ্ছে। এছাড়াও অনেক সময় দেখা যায় আমরা না জেনেই খাবার আগে ও পরে এমন কিছু কাজ করছি যার ফলে আমাদের শরীরে তার বিরূপ প্রভাব পরছে। তাই খাবার আগে ও পরে যদি কিছু সাধারণ নিয়ম অনুসরণ করা না যায় তাহলে স্বাভাবিক ভাবেই দেহের ওজন বৃদ্ধি পায় এবং হজম ক্রিয়াতে সমস্যার সৃষ্টি হয়।
তাই বিশেষ করে রাতে খাবার আগে ও পরে যদি কিছু সাধারণ কৌশল মেনে চলা যায় তাহলে গ্রহন করা খাবার থেকে ভালো ফল আমরা পাবো সেই সাথে হজম ক্রিয়া উন্নত হবে এবং অতিরিক্ত ওজন কমবে সহজে।
খাবার আগে যে ব্যাপারগুলো মনে রাখতে হবে

পানি খেতে হবে
বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় যেকোনো মূল খাবার খাওয়ার সময় আমরা বেশি খেয়ে ফেলি। তাই খাবার ঠিক ১০ মিনিট আগে ১ গ্লাস পানি খেতে হবে। এর ফলে দেহকে পানিশূন্যতা থেকে রক্ষার পাশাপাশি তা বেশি খাওয়ার প্রবনতা কমাবে।
ঢিলাঢালা ও আরামদায়ক পোশাক পরতে হবে
আঁটসাঁট পোশাক পরে খাবার খাওয়া উচিত নয় কারন তা অস্বস্থির সৃষ্টি করতে পারে। আঁটসাঁট পোশাক পরে খাবার খাওয়ার ফলে পেটের সমস্যার সৃষ্টি হয় এবং পেট ফুলে থাকে।
খাবার পরে যেসব কাজগুলোর কথা মনে রাখতে হবে

খাবার পর কি কি করা যাবে সেটা নির্ধারিত হবে খাবার পর ঠিক কতটুকু সময় আপনার হাতে থাকবে তার উপর।তাই নিজস্ব রুটিনের সামান্য কিছু পরিবর্তন এনে খুব সহজেই ভালো ফলে পেতে পারেন।
জেগে থাকতে হবে
যেকোনো মূল খাবার খাওয়ার পর স্বাভাবিক ভাবেই একটু ঘুমাতে ইচ্ছে করে। কিন্তু আপনি যখন ঘুমান তখন হজমক্রিয়ার গতি ধীর হয়ে যায়। তাই খাবার পরপরই ১ থেকে ২ ঘণ্টার মাঝে ঘুমাবেন না সেটা রাত বা দিন যখনি হোক।
গোসল করবেন না
খাবার পর পরই গোসল করবেন না এতে হজমের প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্থ হয় এবং বদ হজমের সম্ভাবনা থাকে। তাই পরিস্কার ও সতেজ থাকতে সব সময় চেষ্টা করুন দুপুরে বা রাতে খাবার ঠিক আগে গোসল করতে।
ধূমপান থেকে বিরত থাকুন
ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর তা আমরা সবাই জানি তাই ধূমপান করবেন না আর যদি করতেই হয় দুপুরে বা রাতে খাবার পর সেটা করা থেকে বিরত থাকুন। কারন এর ফলে গৃহিত খাবার থেকে তা পুষ্টি শোষণ করে নেয় এবং ক্ষুধা বাড়িয়ে দিয়ে অতিরিক্ত খাবার ইচ্ছার সৃষ্টি করে।
দাঁত ব্রাশ করুন
খাবার দাঁতের প্রচুর ক্ষতি করে। তাই খাওয়ার পর পরই ভালোভাবে দাঁত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে যখন তেল চর্বির ভারী খাবার, মিষ্টি ও অম্ল জাতীয় খাবার খাওয়া হয়।
হাঁটতে যান
খাবার পর ধীরে ধীরে কিছুক্ষন হাঁটুন।এতে খাবার হজম হবে ভালো ভাবে এবং পেট ফোলা ভাব কমে যাবে।
অতিরিক্ত কাজ থেকে বিরত থাকুন
খাবার পর ধীরে ধীরে হাঁটা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো কিন্তু কোন ধরনের ব্যায়াম করা বা অতিরিক্ত পরিশ্রমের কাজ করা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। তাই ব্যায়াম দিনের শুরুতেই করে ফেলা উত্তম।
ফল খাওয়া থেকে বিরত থাকুন
আমাদের মাঝে অনেকেই খাবার খাওয়ার পরপরই ফল খেয়ে থাকেন কিন্তু এটা ঠিক নয়। কারন এর ফলে পেট ফাঁপা ও হজমের সমস্যা হতে পারে। তাই ফল খেতে হলে খাবার খাওয়ার পর বেশ কিছু সময় অপেক্ষা করে তবেই ফল খান।
লেখিকা
শওকত আরা সাঈদা(লোপা)
জনস্বাস্থ্য পুষ্টিবিদ
এক্স ডায়েটিশিয়ান,পারসোনা হেল্‌থ
খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান(স্নাতকোত্তর)(এমপিএইচ)

error: দুঃখিত!