২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
শনিবার | রাত ৯:৫৩
Search
Close this search box.
Search
Close this search box.
ইমুতে পরিচয়, সৌদি যেতে দেড় লাখ টাকা দিয়ে এখন আইডির মালিককে খুঁজছেন ভুক্তভোগী
খবরটি শেয়ার করুন:

মুন্সিগঞ্জ, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, নিজস্ব প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

ইমুতে পরিচয়ের পর দুইজনকে সৌদি আরব নেয়ার কথা বলে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দেড় লাখ টাকা আত্মসাৎয়ের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী দুই যুবক আরিফ (২২) ও মনিরের পিতা (২৫) সম্প্রতি মুন্সিগঞ্জ সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার চরকেওয়ার ইউনিয়নের হোগলাকান্দি এলাকার হানিফ মোল্লার বোন সৌদি আরব প্রবাসী ডলি বেগমের সাথে (৪৫) Md Maruf নামক ইমু আইডির মধ্যে পরিচয়ের সূত্র ধরে হানিফ মোল্লার সাথেও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে উঠে। মারুফ (২৫) তার পরিচয় সদর উপজেলার পঞ্চসার ইউনিয়নের নয়াগাও এলাকায় বলে জানায়।

আইডির ঐ ব্যক্তি জানায়, সৌদি আরবে তার গার্মেন্টসের দোকান রয়েছে এবং সেখানে কিছু লোক লাগবে। পরবর্তীতে সে হানিফ মোল্লার দুই ছেলে আরিফ ও মনিরকে সৌদি আরবে নেয়ার কথা বলে পাসপোর্ট ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স করায়। পরবর্তীতে ইমুর ঐ ব্যক্তি তার পিতার অসুস্থতার কথা বলে বিদেশে নেয়া বাবদ দেড় লাখ টাকা দাবি করে। হানিফ মোল্লা সেই দাবি মোতাবেক দুইটি বিকাশ নাম্বারে (০১৯২২৬০০২৬১, ০১৯৯০১২১০৬৬) দেড় লাখ টাকা পাঠান।

টাকা নেয়ার পর থেকে ইমুর ঐ ব্যক্তির আচার-ব্যবহার পাল্টে যায়। একপর্যায়ে আইডির নাম Md Maruf থেকে হয়ে যায় Md Munna।

ভুক্তভোগী দুই যুবকের পিতা হানিফ মোল্লা বলেন, ইমু আইডিতে প্রতারক যুবকের একটি ছবি ছিলো। ছবির সূত্র ধরে এখন তাকে আমরা খুঁজে বেড়াচ্ছি। পুলিশও তাকে খুঁজছে।

কেউ ছবিতে থাকা ব্যক্তিটির প্রকৃত নাম-পরিচয় জেনে থাকলে 01928380540 নাম্বারে যোগাযোগের অনুরোধ করেছেন তিনি।

error: দুঃখিত!