মুন্সিগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর মাদকসেবীদের ২ দফা হামলা, আহত ৬

মুন্সিগঞ্জ, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, শ্রীনগর প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে ১২ ঘন্টার ব্যবধানে বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর মাদকসেবীদের ২ দফা হামলার ঘটনায় একই পরিবারের ৬ জন আহত হয়েছে।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর রোববার বিকালে ও সোমবার সকালে উপজেলার বাড়ৈখালীতে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

আহত বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিমউদ্দিন তালুকদার (৭০), তার ২ পুত্র বাড়ৈখালী ইউনিয়নের সাবেক ছাত্রলীগের নেতা মো. রাসেল (৪০), রাজিব (৩০), জামাতা মনির হোসেন (৪৫), নাতি তাসিন তালুকদার (১৭) ও কন্যা নারর্গিস আক্তার তুলি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোববার বিকালে প্রথম দফা হামলার ঘটনায় বাড়ৈখালী এলাকার মাদকসেবী মো. মিঠু তালুকদার (২৬), ইমরান (২২) করিম তালুকদার (৫৮), শহিদ দেওয়ান (৩৫) সহ মোট ১০ জনের বিরুদ্ধে ওই রাতে শ্রীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরের দিন সকালে অভিযুক্তরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে দ্বিতীয় দফা হামলা চালায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের ওপর।

স্থানীয়রা জানায়, গত ২ মাস আগে বাড়ৈখালীতে একটি মাদক বিরোধী সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিমউদ্দিনের এক বক্তব্যে মাদকসেবীদের নাম উঠে আসে। ওই বক্তব্যের ধারনকৃত ভিডিও সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল হলে মাদকসেবীরা মুক্তিযোদ্ধার ওপর ক্ষীপ্ত হয়।

মিঠু, ইমরান ও করিমের নের্তৃত্বে মাদকসেবীরা মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির সামনে ও পরের দিন বাড়ৈখালী বাজারের পশ্চিম পাশে এই হামলা চালায়। এসময় মাদকসেবীদের চাপাতির কুপে মুক্তিযোদ্ধা নাজিমউদ্দিনের পিঠ কেটে যায়।

এছাড়াও তার ২ পুত্র রাসেল ও রাজিবকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

হামলার স্বীকার সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাসেল তালুকদার বলেন, মাদক বিরোধী সভায় মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেয়ায় তারা ক্ষীপ্ত হয়ে প্রথম দফা হামলা চালায় এতে আমার বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবাকে চাপাতি দিয়ে কুপ দিলে তার পিঠে লাগে।

এসময় বাবাকে বাচাতে পরিবারের লোকজন এগিয়ে আসলে ছোট ভাই, বড় বোন ও বোন জামাইসহ পরিবারের ৫ জনকে মেরে আহত করে। এই ঘটনায় বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করলে মাদকসেবীরা ক্ষীপ্ত হয়ে সোমবার সকালে আমাকে চাপাতি দিয়ে কুপ দিলে মাথায় লাগে। এতে করে আমার মাথায় ১২টি সেলাই করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে মিঠু তালুকদারসহ অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের স্বাক্ষাত পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হেদায়াতুল ইসলাম ভূঞা জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মন্তব্য জানান...

error: দুঃখিত!