মুন্সিগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রী’র মৃত্যুর ঘটনায় শাশুড়ি জেলে

মুন্সিগঞ্জ, ২ এপ্রিল, ২০২১, ডেস্ক রিপোর্ট (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলার আবদুল্লাহপুর গ্রামে রিয়া মনি (২৩) নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় শাশুড়ি হোসনে আরা বেগমকে আটকের পর জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে শাশুড়ি হোসনে আরা বেগমকে মুন্সিগঞ্জ আদালতে হাজির করা হলে আমলী আদালত ৪ এর বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যজিস্ট্রেট শান্তি চন্দ্র দেবনাথ তাকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। এর আগে ওই শাশুড়িকে গ্রেফতার করে দুপুরে মুন্সিগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ।

এর আগে নিহত গৃহবধূ রিয়া আক্তারের উপজেলার আবদুল্লাহপুর গ্রামে স্বামীর বাড়িতে বুধবার রাতে রহস্যজনক মৃত্যু হয়। পরে রাত ১০ টার দিকে টংগিবাড়ী থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। নিহত গৃহবধূ ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসী সবুজের স্ত্রী।

নিহতের পরিবার সুত্রে জানাগেছে, ৩ বছর আগে উপজেলার পাঁচগাও গ্রামের আতাউর পাইকের মেয়ে রিয়া মনির সাথে একই উপজেলার আবদুল্লাহপুর গ্রামের সবুজের বিয়ে হয়। বৈবাহিক জীবনে তাদের এক ছেলে রয়েছে। বিয়ের পর হতেই সৌদি আরবে থাকতো সবুজ। সবুজের মা হোসনে আরা প্রায় রিয়ার সাথে ঝগড়া বিবাদ করতো।

নিহতের বাবা আতাউর পাইক জানান, আমার মেয়েকে তার শাশুড়ি প্রায় নির্যাতন করতো। জামাই সৌদি আরব আছে বাড়িতে আমার মেয়েকে একা পেয়ে শাশুড়ি হোসনে আর বেগম, দুই ননদ সাথী ও বিথী এবং ননদের জামইরা মিলে আমার মেয়েকে খুণ করেছে। খুণ করার পর ওই এলাকার চেয়ারম্যান আমাদের ফোন দিয়ে বলেছে রিয়া ঘরের ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্নহত্যা করছে।

কিন্তু আমরা এসে দেখি ওকে খাটের উপর শুয়াইয়া রাখছে। ওরা আমার মেয়েকে খুণ করে খাটে গলায় ওড়না পেচাইয়া শুয়াইয়া রেখে এখোন বলছে আত্মহত্যা করছে।আমি টঙ্গিবাড়ী থানায় মামলা করেছি।

এ ব্যাপারে টংগিবাড়ী থানার ওসি হারুন আর রশিদ জানান, এ ঘটনায় মেয়ের বাবা অভিযোগ দায়ের করেছে। থানায় আত্নহত্যায় প্ররোচণার দায়ে মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করে মুন্সিগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য জানান...

error: দুঃখিত!