মুন্সিগঞ্জে অস্ত্র দেখিয়ে আ. লীগ নেতাকে মেরে ফেলার হুমকি

মুন্সিগঞ্জ, ৬ মার্চ, ২০২১, বিশেষ প্রতিনিধি (আমার বিক্রমপুর)

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে অস্ত্র দেখিয়ে আ. লীগ নেতাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার হাঁসাড়া গ্রামের শাহআলম শেখের ছেলে মোঃ জাকির মাঝি (৩০),মোঃ আকাশ (২৫)ও বাপ্পি (২৯) ‘র বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী সুত্রে জানা যায়, গত বুধবার বেলা ১১টার সময় একই গ্রামের আলহাজ্ব বাবুল আক্তার মন্টু তাহার ক্রয় কৃত জমিতে বালু ভারাট করতে গেলে জাকির বাহিনী বাঁধা প্রদান করে। বাবুল আক্তার মন্টু তাদেরকে বালু ভরাটের কাজে কেন বাঁধা দিচ্ছেন জিজ্ঞেস করলে জাকির মাঝি সহ তার লোকজন বাবুল আক্তার মন্টু’র উপর চড়াও হয়।

কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে জাকির তার কোমরে থাকা অবৈধ পিস্তল প্রদর্শন করে আওয়ামী লীগে নেতা বাবুল আক্তার মন্টুকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। বাবুল আক্তার মন্টু ভয়ে আর কোন কথা না বাড়িয়ে চুপসে যান। এতে ও জাকির বাহিনী থেমে থাকেনি তারা বাবুল আক্তার মন্টু সহ কাজের লোকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং জাকির বাহিনী ছড়া বালু ভরাটের কাজ অন্য কেউ করলে তাদেরকে জানে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

স্হানীয় সূত্রে জানা যায়, বাপ্পি মিরপুর এলাকার একটি হত্যা মামলার আসামি।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স নিজামউদ্দিন এন্টারপ্রাইজ’র প্রোপাইটর মোঃ নিজামউদ্দিনের নিকট জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, আমি ১৯ লক্ষ টাকা চুক্তিতে বাবুল আক্তার মন্টুর কাছ থেকে বালু ভরাটের কাজটি বুঝে নেই একই কাজ জাকির ৩০ লক্ষ টাকা চাওয়ায় মন্টু ভাই আমাকে কাজটি দেয়। আমি কম টাকায় কাজটি কেন নিলাম তারজন্য জাকির ও তাদের লোকজন আমার ভরাট কাজে ব্যবহৃত বড় ৮টি ড্রাম ২৭ তারিখে রাত ৮টা হতে ১২ টা পর্যন্ত ৪ ঘন্টা বেআইনীভাবে আটকিয়ে রাখে।

এ ব্যাপারে জাকির মাঝির মোবাইলে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।

আপনার মন্তব্য জানান...

error: দুঃখিত!