ওমর ফারুক এর কবিতা “জন্ম শতবর্ষে”

অনেকটা সময়, প্রতীক্ষা, অনেক ইতিহাস হয়ে গেছে। চর্যাপদের অন্ধকারের মধ্যথেকে বেড়িয়ে আসা বাঙালি

হাজারো বিপ্লব, বিচ্ছিন্ন সংগ্রাম,লোকজ আন্দোলন, বিদেশি বেনিয়া, তস্করদের তাড়িয়ে রক্তের তলে, ক্ষুব্ধ, বিস্ফোরিত উত্তেজনা ক্রমেই সমন্বিত, রক্তের মধ্য দিয়েই আসে স্বাধীকার, স্বাধীনতা  বিপ্লবের ধারাক্রম, বীরের রক্তে দাঁড়িয়ে আছে দেশ।

সবার প্রতিনিধি হয়ে তিনি এলেন, সবাইকে গেলেন ছাড়িয়ে, সবাইকে মহিমান্বিত করলেন  দীর্ঘদেহী, আজানুলম্বিত, জলদগম্ভীর স্বর,  তর্জনী উঁচিয়ে ঘোষণা করেন শোষিতের অধিকার,  স্বপ্ন বাস্তবায়নে তিন হাজার তিপ্পান্ন দিনের হাজত বাস, জীবন বিপন্ন জেনেও আপোষ করেননি,  পঞ্চান্ন বছরের ক্ষণজন্মা চির শিশু মুজিব, তেইশ বছরের শোষণ বঞ্চনা থেকে নূতন দেশ, মানচিত্র একটি সংবিধান দিলেন। দীর্ঘদেহী মানুষটি জয় করেছেন মানুষকে, তিনি আজ শোষিতের দলে, আমাদের একজন।

আপনার মন্তব্য জানান...

error: দুঃখিত!